সর্বশেষ সংবাদ
December 14, 2017 - আট বছর পর বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজ
December 14, 2017 - শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধা
December 14, 2017 - প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন
December 14, 2017 - শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা নিবেদন
December 14, 2017 - শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ
December 14, 2017 - ইউটিউবে খেলনা দেখিয়ে কোটিপতি ছয় বছরের রায়ান
December 14, 2017 - ফরাসি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের প্রস্তাব- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
December 14, 2017 - রোহিঙ্গা ইস্যু ওআইসি নীরব থাকতে পারে না-রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ
December 14, 2017 - জলবায়ু সম্মেলন বিশ্বের নজর কাড়লেন মাক্রোঁ
December 12, 2017 - বিচার বিভাগের স্বাধীনতা আবারো প্রশাসনের হাতে গিয়েই পড়লো
যে শিল্পীরা ইসরায়েলকে বয়কট করেছেন, যাঁরা করেননি

যে শিল্পীরা ইসরায়েলকে বয়কট করেছেন, যাঁরা করেননি

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

রজার ওয়াটার্স

জার্মানির কয়েকটি সরকারি প্রচারমাধ্যম ‘ইহুদি বিদ্বেষের অভিযোগ’ ওঠায় পিংক ফ্লয়েডের সাবেক সদস্য রজার ওয়াটার্সের কনসার্ট প্রচার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ ওয়াটার্স ফিলিস্তিনি নেতৃত্বাধীন সংগঠন ‘বয়কট, ডাইভেস্টমেন্ট অ্যান্ড স্যানকশান মুভমেন্ট’ বা বিডিএস-এর সদস্য৷ ফিলিস্তিনি অঞ্চল দখলের অভিযোগে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বয়কটের আহ্বান জানায় সংগঠনটি৷ কনসার্টে অংশ না নিতে শিল্পীদের প্রতি আহ্বান তেমন একটি৷

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

কেট টেম্পেস্ট

ব্রিটিশ এই ব়্যাপার ‘আর্টিস্টস ফর প্যালেস্টাইন’-এর সমর্থক৷ ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া পদক্ষেপে তিনি মর্মাহত বলে জানিয়েছেন৷ ‘‘অনেক ভাবনাচিন্তার পর আমি বিক্ষোভ প্রদর্শনের লক্ষ্যে এই সাংস্কৃতিক বয়কটে যোগ দিয়েছি,’’ বলেন তিনি৷ তবে তাঁর বিরুদ্ধে যাঁরা ইহুদি বিদ্বেষের অভিযোগের এনেছেন তাঁদের টেম্পেস্ট মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, তিনি নিজেই একজন ইহুদি বংশোদ্ভূত৷

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

এলভিস কস্টেলো

২০১০ সালে ইসরায়েলে তাঁর একটি কনসার্ট বাতিল করেছিলেন ব্রিটিশ এই মিউজিশিয়ান৷ এর কারণ হিসেবে তিনি সেই সময় তাঁর ওয়েবসাইটে লিখেছিলেন, জাতীয় নিরাপত্তার নামে ফিলিস্তিনিদের উপর যে নিপীড়ন চালানো হচ্ছে তার প্রতিবাদ করা ‘বিবেক’-এর বিষয়৷

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

জনি রোটেন

এলভিস কস্টেলো ইসরায়েলে কনসার্টটি বাতিল করার পর সেখানে কনসার্টে গিয়েছিলেন জনি রোটেন৷ কারণ হিসেবে বলেছিলেন, ‘‘গণতন্ত্র আছে এমন এক আরব রাষ্ট্র, এক মুসলিম দেশ না দেখা পর্যন্ত, ফিলিস্তিনিদের প্রতি আচরণ সম্পর্কে কারও সমস্যা থাকার বিষয়টি আমি বুঝবো না৷’’

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

ডেপেশ মোড

২০১৩ সালে ‘ডেল্টা মেশিন টুর’-এর এক পর্যায়ে তেল আভিভে গিয়েছিল ব্রিটিশ এই ব্যান্ড দল৷ সফরের প্রতিদিনকার খবর অনলাইনে জানিয়েছিল তাঁরা৷ কিন্তু তেল আভিভের বিষয়ে একেবারে চুপ ছিল ডেপেশ মোড৷ তাহলে কি ঐখানে কনসার্ট করা নিয়ে লজ্জিত ছিল তাঁরা? ২০০৬ সালে লেবানন যুদ্ধের সময় রাজনৈতিক কারণ দেখিয়ে ইসরায়েলে একটি কনসার্ট বাতিল করেছিল ব্রিটিশ এই ব্যান্ড৷

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

এল্টন জন

২০১০ ও ২০১৬ সালে তেল আভিভে কনসার্টের আগে সেখানে না যেতে এল্টন জনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল বিডিএস৷ কিন্তু তাতে কাজ হয়নি৷ বরং তিনি দর্শকদের হিব্রু শব্দ ‘শালম’ বলে স্বাগত জানিয়েছিলেন৷ এর অর্থ ‘শান্তি’৷ ‘‘আমরা এই মঞ্চে শান্তি আর ভালোবাসা ছড়াচ্ছি৷ আর আমরা এখানে থাকতে পেরে খুশি,’’ বলেন তিনি৷

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

রেডিওহেড

২০১৭ সালের জুলাইতে ইসরায়েলে কনসার্টের আগে সেখানে না যেতে ব্রিটিশ এই ব্যান্ডের উপর প্রচুর চাপ সৃষ্টি করা হয়েছিল৷ ডেসমন্ড টুটুসহ অনেকে তাঁকে অনুরোধ করেছিলেন৷ কিন্তু ব্যান্ডের গায়ক থম ইয়র্ক বলেছিলেন, ‘‘অনেকে আছেন যাঁরা বিডিএস মুভমেন্টের সঙ্গে একমত নন৷ আমরাও আছি তাদের মধ্যে৷ আমি কোনো ধরনের সাংস্কৃতিক নিষেধাজ্ঞার পক্ষে নই৷’’

ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকজন শিল্পী সে দেশে কনসার্ট বাতিল করেছেন৷ তবে কনসার্ট বাতিলের অনুরোধ না শোনা শিল্পীও আছেন৷

ব্রায়ান অ্যাডামস

চলতি মাসে ইসরায়েলে কনসার্ট না করতে অ্যাডামসকে আহ্বান জানিয়েছিল বিডিএস৷ তবে তাতে কাজ হয়নি৷ এর আগে অবশ্য একবার তিনি গাজায় চলা যুদ্ধকে মানবতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ বলে আখ্যায়িত করেছিলেন৷

Please follow and like us:

About author

Related Articles

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enjoy this blog? Please spread the word :)